টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ – ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট তালিকা 0 162

টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ(T20 World Cup Cricket)। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট প্রেমীদের কাছে এক আকর্ষণের নাম। কম সময়ে বেশি বিনোদন দিতে পারাই এর প্রধান কাজ। ২০০৭ সালে শুরু হয়ে ২০২২ অবধি একে একে শেষ হয়ে গেল টি টুয়েন্টি ক্রিকেটের ৮ টি জমজমাট বিশ্বকাপ আসর। ২০২৪ সালের ৯ম টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেট আসর অনুষ্ঠিত হবে আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতে। এবার জেনে নেয়া যাক এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া টি টুয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপ গুলোর আয়োজক, বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও  ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট / সিরিজ(Man of The Tournament) জেতা ক্রিকেটারদের তালিকা।

 

সাল আয়োজক চ্যাম্পিয়ন ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট
২০০৭ দক্ষিণ আফ্রিকা ভারত শহীদ আফ্রিদি
২০০৯ ইংল্যান্ড পাকিস্তান তিলকারত্নে দিলশান
২০১০ ওয়েষ্ট ইন্ডিজ ইংল্যান্ড কেভিন পিটারসেন
২০১২ শ্রীলংকা ওয়েষ্ট ইন্ডিজ শেন ওয়াটসন
২০১৪ বাংলাদেশ শ্রীলংকা বিরাট কোহলি
২০১৬ ভারত ওয়েষ্ট ইন্ডিজ বিরাট কোহলি
২০২১ সংযুক্ত আরব আমিরাত-ওমান অস্ট্রেলিয়া ডেভিড ওয়ার্ণার
২০২২ অস্ট্রেলিয়া ইংল্যান্ড স্যাম কুরান

আরো পড়ুনঃ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ম্যান অফ দ্যা টুর্ণামেন্ট তালিকা


Previous ArticleNext Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

তালমাখনা খাওয়ার উপকারিতা ও ভেষজ গুণাবলি 0 2538

তালমাখনা

আমরা সবাই কি তালমাখনার উপকারিতা ও ভেষজ গুনাবলি সম্পর্কে জানি? তালমাখনা গাছ থেকে পাওয়া বীজ সেবন করলে বিভিন্ন শারীরিক দুর্বলতা নিরাময় করা যায়।

তালমাখনা গাছঃ তালমাখনা একটি অতি উৎকৃষ্ট ভেষজ ওষুধ। তালমাখনা (Talmakhana) গাছ সাধারনত ৫০ সে.মি. থেকে ১ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়ে থাকে। এটির  কান্ড হতে বহু শাখা-প্রশাখা বের হয়। ফুল উজ্জ্বল বেগুনী লাল কিংবা বেগুনী সাদা বর্ণের হয়ে থাকে। বীজ ছোট, গোলাকৃতির, দেখতে অনেকটা তিলের মত, তবে বীজের বর্ণ গাড় খয়েরী। বীজগুলো পানিতে ভিজালে চট চটে কিংবা লোদ বের হয়।

জেনে নেই তালমাখনা সম্পর্কিত কিছু মূল্যবান তথ্য

  • প্রচলিত নামঃ কুলেখাড়া
  • ইউনানী নামঃ তালমাখনা
  • আয়ুর্বেদিক নামঃ কোকিলাক্ষা
  • ইংরেজি নাম: Star Thorn
  • বৈজ্ঞানিক নামঃ Hygrophyla auriculata (Sch.) Heyne
  • বৈজ্ঞানিক পরিবারঃ Acanthaceae

তালমাখনা কোথায় পাওয়া যায়ঃ বাংলাদেশের বিভিন্ন নিম্নভূমি অঞ্চলে যেখানে বছরের কিছু সময়ের জন্য পানি থাকে সেখানে পাওয়া যায়।

রোপনের সময় ও পদ্ধতিঃ অগ্রহায়ন – পৌষ মাসে ফুল ও ফল হয়। বীজ থেকে চারা হয়।

তালমাখনার রাসায়নিক উপাদানঃ ভূ-উপরিস্থ অংশে অ্যালকালয়েড, ফাইটোস্টেরল, স্টিগমাস্টেরল, লুপিয়ল, উদ্বায়ী তেল ও হাইড্রোকার্বন; ফুলে এপিজেনিন এবং বিচিতে তেল ও এনজাইম বিদ্যমান।

ব্যবহার্য অংশঃ কুলেখাড়া বীজ।

তালমাখনা এর ভেষজ গুণাবলি

  • তালমাখনা গুনাগুনঃ পুষ্টিকারক, শুক্রবর্ধক, প্রফুল্লতা আনয়নকারক। লিউকোরিয়া, শুক্রমেহ, যৌনদুর্বলতা ও স্নায়ুবিক দুর্বলতায়।
  • তালমাখনার বিশেষ কার্যকারিতাঃ হজমকারক, বায়ু নিঃসারক, পাকস্থলীর ব্যথা নিবারক।

বিশেষ রোগ অনুযায়ী ব্যবহার পদ্ধতি

  • রোগ: দেহের পুষ্টি সাধন ও সাধারন দুর্বলতা
    ব্যবহার্য অংশঃ বীজচূর্ণ
    মাত্রাঃ ৩ গ্রাম
    খাওয়ার নিয়মঃ তালমাখনা বীজ চূর্ণের সাথে ১ গ্রাম পরিমাণ শতমূলী চূর্ণ মিশিয়ে দুধসহ প্রত্যহ সকালে খালিপেটে এবং রাত্রে শয়নকালে সেব্য।
  • রোগ: শুক্রমেহ ও লিউকোরিয়া
    ব্যবহার্য অংশঃ বীজচূর্ণ
    মাত্রাঃ ৩ গ্রাম
    খাওয়ার নিয়মঃ চূর্ণের সাথে ১ গ্রাম পরিমাণ তেঁতুল বীজ চূর্ন মিশিয়ে প্রত্যহ ২ বার দুধসহ সেব্য।
  • রোগ: যৌন ও স্নায়ুবিক দুর্বলতা
    ব্যবহার্য অংশঃ বীজচূর্ণ
    মাত্রাঃ ৩ গ্রাম
    খাওয়ার নিয়মঃ  চূর্ণের সাথে ১ গ্রাম পরিমাণ অশ্বগন্ধা চূর্ণ ও ৩ চা চামচ মধু মিশিয়ে প্রত্যহ ২ বার সেব্য।

তালমাখনা খাওয়ার নিয়মঃ থাকতে হবে সতর্কও

তালমাখনা নির্দিষ্ট মাত্রার অধিক সেবন করা সমীচীন নয়। কারণ, এতে পেটে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে।

তালমাখনা খাওয়ার উপকারিতা অনেক। মানবদেহের জন্য অতি উপকারী তালমাখানার দামও কিন্তু খুব বেশি না, বাংলাদেশের প্রায় সকল জনপ্রিয় অনলাইন শপিং মলেই তালমাখানা পাওয়া যায়, আর অর্ডার করে ঘরে বসেই নিতে পারেন তালমাখনা হোম ডেলিভারি।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ – ম্যান অফ দ্যা ফাইনাল তালিকা 0 514

ক্রিকেট বিশকাপের ফাইনাল সেরা তালিকা

বিশ্বকাপ ক্রিকেট। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট প্রেমীদের কাছে এক অপেক্ষার নাম। ১৯৭৫ সালে শুরু হয়ে ২০১৯ অবধি একে একে শেষ হয়ে গেল একদিনের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ১২ টি আসর। ২০২৩ সালের ১৩ তম বিশ্বকাপ ক্রিকেট আসর অনুষ্ঠিত হবে আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতে। এবার জেনে নেয়া যাক এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া ক্রিকেট বিশ্বকাপ গুলোর আয়োজক, বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও  ফাইনালে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ(ম্যান অফ দ্যা ফাইনাল) জেতা ক্রিকেটারদের তালিকা।

সাল আয়োজক চ্যাম্পিয়ন ম্যান অফ দ্যা ফাইনাল
১৯৭৫ ইংল্যান্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্লাইভ লয়েড
১৯৭৯ ইংল্যান্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভিভ রিচার্ডস
১৯৮৩ ইংল্যান্ড ভারত মাহিন্দর অমরনাথ
১৯৮৭ ভারত-পাকিস্তান অস্ট্রেলিয়া ডেভিড বুন
১৯৯২ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান ওয়াসিম আকরাম
১৯৯৬ ভারত-পাকিস্তান-শ্রীলংকা শ্রীলংকা অরবিন্দ ডি সিল্ভা
১৯৯৯ ইংল্যান্ড-স্কটল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড অস্ট্রেলিয়া শেন ওয়ার্ণ
২০০৩ দক্ষিন আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে-কেনিয়া অস্ট্রেলিয়া রিকি পন্টিং
২০০৭ ওয়েস্ট ইন্ডিজ অস্ট্রেলিয়া অ্যাডাম গিলক্রিষ্ট
২০১১ ভারত-বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ভারত মহেন্দ্র সিং ধোনি
২০১৫ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড অস্ট্রেলিয়া জেমস ফকনার
২০১৯ ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড বেন স্টোকস
২০২৩ ভারত প্রযোজ্য নয় প্রযোজ্য নয়